সদ্যপ্রাপ্ত
রাজশাহী, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫
52 somachar
শুক্রবার ● ৫ অক্টোবর ২০১৮
প্রথম পাতা » এক্সক্লুসিভ » ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫১তম সমাবর্তনে অংশ নিচ্ছেন ২১ হাজারের বেশি গ্র্যাজুয়েট
প্রথম পাতা » এক্সক্লুসিভ » ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫১তম সমাবর্তনে অংশ নিচ্ছেন ২১ হাজারের বেশি গ্র্যাজুয়েট
৪৬ বার পঠিত
শুক্রবার ● ৫ অক্টোবর ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫১তম সমাবর্তনে অংশ নিচ্ছেন ২১ হাজারের বেশি গ্র্যাজুয়েট

ঢাবি প্রতিনিধি, ৫২ সমাচারঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫১তম সমাবর্তনে অংশ নেওয়ার জন্য ২১ হাজারের বেশি গ্র্যাজুয়েট নিবন্ধিত হয়েছেন, যা রেকর্ড বলে জানিয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।সমাবর্তনের দুদিন আগে বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান তিনি।

আগামী শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে এই সমাবর্তনের মূল অনুষ্ঠান হবে। কেন্দ্রীয় খেলার মাঠের বাইরে আরও দুইটি বাড়তি ভেন্যু থাকছে ঢাকা কলেজ ও ইডেন কলেজ।

উপাচার্য্য বলেন, “সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার জন্য মোট ২১ হাজার ১১১ জন গ্র্যাজুয়েট রেজিস্ট্রেশন করেছেন। এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনের ইতিহাসে সর্বাধিক সংখ্যা।”

“সমাবর্তনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভূক্ত সরকারি সাত কলেজের গ্রাজুয়েটবৃন্দ ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজ ভেন্যু থেকে সরাসরি সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন,” বলেন তিনি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য কার্যালয় সংলগ্ন আব্দুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে এই সংবাদ সম্মেলনে উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. কামাল উদ্দিন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল ও প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রাব্বানী উপস্থিত ছিলেন।

অধ্যাপক আখতারুজ্জামান জানান, ৫১তম সমাবর্তনে কৃতি শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৯৬টি স্বর্ণ পদক, ৮১ জনকে পিএইচডি ও ২৭ জনকে এমফিল ডিগ্রি দেওয়া হবে।

এবার সমাবর্তন বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেবেন জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য ও রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

সমাবর্তন অনুষ্ঠানের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন জানিয়ে অধ্যাপক আখতারুজ্জামান গ্র্যাজুয়েটদের নির্বিঘ্ন চলাফেরা নিশ্চিতে সমাবর্তন প্রাঙ্গণের রাস্তা ব্যবহারকারী সাধারণ মানুষকে বিকল্প পথ বেছে নেওয়ার অনুরোধ করেন।



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)