সদ্যপ্রাপ্ত
রাজশাহী, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫
52 somachar
শুক্রবার ● ৫ অক্টোবর ২০১৮
প্রথম পাতা » জাতীয় » জাবি ছাত্রলীগের ১০ নেতা-কর্মীকে বহিষ্কারের সুপারিশ
প্রথম পাতা » জাতীয় » জাবি ছাত্রলীগের ১০ নেতা-কর্মীকে বহিষ্কারের সুপারিশ
২৫ বার পঠিত
শুক্রবার ● ৫ অক্টোবর ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

জাবি ছাত্রলীগের ১০ নেতা-কর্মীকে বহিষ্কারের সুপারিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ৫২সমাচারঃজাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) মীর মশাররফ হোসেন হল ও আল বেরুনী হল ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের মধ্যে সংঘটিত সংঘর্ষের ঘটনায় ১০ ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীকে সংগঠন থেকে এক মাসের জন্য বহিষ্কারের সুপারিশ করেছে শাখা ছাত্রলীগ।একই সঙ্গে তাদেরকে কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না সে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৪ অক্টোবর) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. জুয়েল রানা ও সাধারণ সম্পাদক এস এম আবু সুফিয়ান চঞ্চল স্বাক্ষরিত লিখিত সুপারিশ পত্র থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

সুপারিশ পত্রে বলা হয়, মঙ্গলবার আল-বেরুনী হল ও মীর মশাররফ হোসেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘটিত অনাকাঙ্খিত ঘটনার প্রেক্ষিতে ও দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে ১০ ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীকে ১ মাসের জন্য বহিষ্কাকারের সুপারিশ করা হল। একই সঙ্গে কেনো তাদেরকে সংগঠন থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তার কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেওয়া হলো।

এক মাসের বহিষ্কারের সুপারিশ প্রাপ্ত নেতা-কর্মীদের ৬ জন মীর মশাররফ হোসেন হলের আবাসিক ছাত্র। এরা হলেন- শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি দেবাশীষ মিত্র, ছাত্রলীগ কর্মী মো. রবিউল ইসলাম, অনিক সাহা, মো. জুনায়েদ, মো. আমিরুল ইসলাম সুজন ও মো. আবু সাঈদ। অপর দিকে বহিষ্কারের সুপারিশ প্রাপ্ত নেতা-কর্মীদের মধ্যে ৪ জন আল-বেরুনী হলের আবাসিক ছাত্র। এরা হলেন- শাখা ছাত্রলীগের সদস্য ইমরান হোসেন, কর্মী আশিক শেখ, সোহেল রানা ও সুজন মাহমুদ।

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. জুয়েল রানা বলেন, ‘ছাত্রলীগ কখনো অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয় না। হোক সে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী বা অন্য কেউ। এ ধরনের অনাকাঙ্খিত ঘটনায় শাখা ছাত্রলীগ বিব্রত। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে এবং সংগঠন থেকে এক মাসের জন্য সাময়িক বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে বহিষ্কারের সুপারিশ কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আল-বেরুনী হল ও মীর মশাররফ হোসেন হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উভয় হলের ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীসহ অন্তত ৩০ জন শিক্ষার্থী আহত হন।



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)