সদ্যপ্রাপ্ত
রাজশাহী, মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৯, ৯ মাঘ ১৪২৫
52 somachar
শনিবার ● ৩০ জুন ২০১৮
প্রথম পাতা » এক্সক্লুসিভ » বিশ্ব দেখছে বাংলাদেশের পতাকা
প্রথম পাতা » এক্সক্লুসিভ » বিশ্ব দেখছে বাংলাদেশের পতাকা
২৯২ বার পঠিত
শনিবার ● ৩০ জুন ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

বিশ্ব দেখছে বাংলাদেশের পতাকা


 ---

রাসেল, সিলেট প্রতিবেদকঃ ৩২ দেশের অংশগ্রহণে রাশিয়াতে চলছে বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮ । সে তালিকায় নেই বাংলাদেশ। তবে বাংলাদেশ না থাকলেও রাশিয়ায় ভিন্নরূপে উপস্থিত রয়েছে প্রিয় দেশ। রয়েছে দেশের পতাকা। প্রায়ই ফুটবল বিশ্বকাপের গ্যালারিতেদেখা যাচ্ছে বাংলাদেশের পতকা। অনেকের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

গত ২৬ জুন সেন্ট পিটার্সবার্গ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত আর্জেন্টিনা বনাম নাইজেরিয়া মধ্যকার ম্যাচে গ্যালারিতে ছিল বাংলাদেশের পতাকা। তবে আর্জেন্টিনার উল্লাসের মুহূর্তটুকু অন্যদের কাছে খুব স্বাভাবিক মনে হলেও বাংলাদেশিদের জন্য ছিল একটু বিস্ময়কর। বাংলাদেশেও রয়েছে মেসির অন্ধ ভক্তকুল। সেই ভালোবাসার টানেই বাংলাদেশি ভক্তরা পিটার্সবার্গ স্টেডিয়ামে হাজির হয়েছিলেন আর্জেন্টিনার সমর্থক,যদি মেসির দেখা মেলে! মেসি হয়তো বাংলাদেশের পতাকা চিনেন না কিন্তু তাঁর এই খেলার সঙ্গে ঠিকই মিশে গেল এক টুকরো বাংলাদেশ!

 আর্জেন্টিনা ও নাইজেইয়া মধ্যকার ম্যাচে বাংলাদেশের পতাকা হাতে উপস্তিত হন সিলেট আম্বর খানার আজিজ পেইন্ট এন্ড হার্ডোয়্যার এর প্রোপাইটর মোঃ আব্দুল আজিজ ও মোঃ শরিফ মিয়া এসময় তাদের হাতে ও মাথায় বাঁধা ছিল বাংলাদেশের পতাকা।

সেন্ট পিটার্সবার্গ স্টেডিয়ামে আর্জেন্টিনা – নাইজেরিয়া ম্যাচে পতাকা হাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তারা বলেন, আমরা দেশের পতাকা সবাইকে দেখানোর জন্যই এখানে নিয়ে আসছি। । বাংলাদেশ থেকে আর্জেন্টিনার খেলা দেখার জন্যই রাশিয়া আসছি । উনারা দলবদ্ধভাবে উড়িয়েছেন বাংলাদেশের পতাকা। অবশেষে ২-০ গোলে জয় পেয়ে আর্জেন্টিনাকে ২য় রাউন্ডে যেতে দেখে তারা আনন্দিত। মেসির দুর্দান্ত খেলা উপভোগ করেছেন মাঠে বসে ।

এবারের বিশ্বকাপে ৩২টি দল খেলছে। কিন্তু তা বাদেও স্টেডিয়ামে অন্যান্য দেশগুলোও পতাকা উড়াচ্ছে। তাদের বিশ্বাস তারাও একদিন বিশ্বকাপ খেলবে। তাছাড়াও নিজের দেশকে ব্র্যান্ডিং করার এর চেয়ে ভালো সুযোগ আর হতে পারে না। ঠিক তারাও একই কাজ করেছেন বিশ্বের দোয়ারে নিজের দেশকে পরিচয় করিয়ে দেওয়া এবং সব দেশের পতাকার সঙ্গে আমাদের বাংলাদেশের পতাকাও উড়ানো। তারা বলেন অনেকে জিজ্ঞাসা করেছে এটা কোন দেশের পতাকা, তখন আমার বাংলাদেশকে পরচিয় করিয়ে দিয়েছি গৌরাবের সাথে। আমার বিশ্বাস বাংলাদেশ একদিন ফুটবল খেলবে। সারা বিশ্ব বাংলাদেশকে নিয়ে আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠবে।



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)