সদ্যপ্রাপ্ত
রাজশাহী, বুধবার, ১৮ জুলাই ২০১৮, ৩ শ্রাবণ ১৪২৫
52 somachar
সোমবার ● ১৬ এপ্রিল ২০১৮
প্রথম পাতা » আমাদের রাজশাহী » অসহায় মানুষের কল্যাণে নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে চায় রাজশাহীর তানভীর
প্রথম পাতা » আমাদের রাজশাহী » অসহায় মানুষের কল্যাণে নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে চায় রাজশাহীর তানভীর
২৮১ বার পঠিত
সোমবার ● ১৬ এপ্রিল ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

অসহায় মানুষের কল্যাণে নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে চায় রাজশাহীর তানভীর

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী: তানভীর ইসলাম। রাজশাহী বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৬ সালে বিএসসি ইন ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করে বর্তমানে কুয়ালালামপুরে সেগি ইউনিভার্সিটিতে ২ বছর মেয়াদি এমবিএ মাস্টার্স প্রোগ্রামে পড়াশুনা করছে। বিদেশে পড়াশুনা করে মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি তে চাকরী করতে চান। দেশের অসহায় মানুষ এর কল্যাণ এবং শিশুদের বিনোদন নিয়ে কাজ করাই তার প্রধান লক্ষ্য।বিদেশের প্রতি আগ্রহ ছিল তার ছোট বেলা থেকেই। তাই অনেক আগে থেকেই ফেসবুকে মালেশিয়ার বিভিন্ন ইউনিভার্সিটির ছাত্রদের কাছ থেকে বিভিন্ন তথ্য জানতে থাকে। বিএসসি পাস করেই সে ব্রিটিশ কাউন্সিল এর আইএলটিএস কোর্স শুরু করে দেয়। সেখানে ভাল নম্বর করে ফেসবুকের বন্ধুর মাধ্যমে এ্যাপলাই করে তানভীর। অফার লেটার পাওয়ার পর সে যাবতীয় প্রস্তুতি নিতে থাকে।

“আর্থসামাজিক ক্ষেত্রে মালয়েশিয়া অভূতপূর্ব উন্নয়ন করেছে। দেশটি শিক্ষাক্ষেত্রেও অনেক উন্নত হয়েছে। বর্তমানে এশিয়ার বড় এডুকেশনাল হাব হিসেবে রূপ নিয়েছে দেশটি। এখানে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে অসংখ্য বিশ্বমানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তাই উচ্চশিক্ষার জন্য বাংলাদেশের অনেকেই এখন ছুটছেন দেশটিতে। এখন সব কোম্পানিতেই ইঞ্জিনিয়ারিং এর সাথে এম বি এ ডিগ্রিধারী দের অগ্রাধিকার দেয়। তাই আমার এই বিষয় পড়াটাই যথার্থ।”

তানভীর জানান, মালয়েশিয়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে রয়েছে শিক্ষার্থীদের জন্য পর্যাপ্ত রেফারেন্স বইসহ সমৃদ্ধ লাইব্রেরি। আধুনিক বৈজ্ঞানিক শিক্ষা সারঞ্জামাদির সফল ব্যবহার করা হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। দেশি-বিদেশি দক্ষ ও অভিজ্ঞ শিক্ষকদের তত্ত্বাবধানে আধুনিক পাঠদান পদ্ধতির প্রচলন করা হয়েছে। আধুনিক শিক্ষার সঙ্গে ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষার সমন্বয় রয়েছে। বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য অল্প খরচে উন্নত আবাসিক সুবিধা দেওয়া হয়। আর খাদ্যব্যবস্থাও স্বাস্থ্যকর। এশিয়ার ইউরোপ’ খ্যাত মালয়েশিয়ায় বিশ্বের প্রায় ৪০টি দেশ থেকে শিক্ষার্থীরা আসছে। এঁদের বেশির ভাগই আসেন উচ্চশিক্ষার জন্য। বাংলাদেশ থেকেও অনেক শিক্ষার্থী মালয়েশিয়ায় যান। সরকারি ও উচ্চ মানের কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া মালয়েশিয়ার প্রায় বেশির ভাগ কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে সহজেই ভর্তি হওয়া যায়। এ ক্ষেত্রে আইইএলটিএসও প্রয়োজন হয় না।

“মালয়েশিয়ার বেশির ভাগ বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে টিউশন ফিও কম। মূলত এই কয়টি কারণেই বিশ্বের অনেক উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশ থেকে অনেক শিক্ষার্থী উচ্চ শিক্ষার জন্য মালয়েশিয়ায় যান।”

ভ্রমণ নিয়ে বিখ্যাত সাংবাদিক ও লেখক মার্ক টোয়েন বলেছেন ‘আজ থেকে বিশ বছর পর আপনি এই ভেবে হতাশ হবেন যে, আপনার পক্ষে যা যা করা সম্ভব ছিল তা করতে পারেননি। তাই নিরাপদ আবাস ছেড়ে বেরিয়ে পড়ুন। আবিষ্কারের জন্য যাত্রা করুন,স্বপ্ন দেখুন আর শেষমেশ আবিষ্কার করুন’। তাই ভ্রমণপ্রিয়তানভীর মালেশিয়ার বিভিন্ন আকর্ষনীয় স্থান এ ভ্রমণ করেছেন। সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়া ভ্রমণ করেছেন। সেই দেশের মানুষের সাহায্য করার প্রবণতা ও বন্ধুসুলভ আচরণ তাকে মুগ্ধ করেছে।

একজন সফল মানুষ হতে চায় তানভীর। মানুষের কল্যাণের জন্য নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে চায়। তার মানব কল্যাণের কাজের মাধ্যমে দেশ বিদেশে সকলে তার নাম মনে রাখুক আর সকলের ভালবাসায় তার সামনে এগিয়ে চলার পথ আরও সুগম হয়ে উঠুক এটাই তার জীবন এর প্রধান ব্রত।

“সারাবিশ্বের সামনে বাংলাদেশ কে প্রতিনিধিত্ব করাটা সপ্ন আমার। সব কিছু উজার করে সেই সপ্ন কে বাস্তব রুপ দিতে চাই। মানবকল্যাণ এর কাজ করে সকলের মন জয় করতে চাই। আমার পরিবার কে আমি খুব ভালবাসি। আমি আশাকরি সকলের ভালবাসা আমাকে সে পর্যায়ে নিয়ে যাবে। তখন নিজেকে খুব ভাগ্যবান মনে হবে।”



আরো পড়ুন...

সিলেট উপশহরের ২২নং ওয়ার্ডে প্রচারনায় ব্যাস্ত কাউন্সিলার পদপ্রার্থী আবু জাফর সিলেট উপশহরের ২২নং ওয়ার্ডে প্রচারনায় ব্যাস্ত কাউন্সিলার পদপ্রার্থী আবু জাফর
বিয়ানীবাজারে রাস্তা রক্ষায় মানববন্ধন বিয়ানীবাজারে রাস্তা রক্ষায় মানববন্ধন
কুয়েতে দূর্ঘটনায় বোয়ালখালীর করিমের মৃত্যু, এলাকায় শোকের ছায়া কুয়েতে দূর্ঘটনায় বোয়ালখালীর করিমের মৃত্যু, এলাকায় শোকের ছায়া
সিসিক নির্বাচন: মেয়রপদে লড়াইয়ে থাকা ৭ প্রার্থীর প্রতীক বরাদ্দ সম্পন্ন সিসিক নির্বাচন: মেয়রপদে লড়াইয়ে থাকা ৭ প্রার্থীর প্রতীক বরাদ্দ সম্পন্ন
বদরুজ্জামান সেলিমকে বিএনপি থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত বদরুজ্জামান সেলিমকে বিএনপি থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত
হজযাত্রায় এখনো ১৪ হাজার টিকিট নেয়নি বিভিন্ন এজেন্সি হজযাত্রায় এখনো ১৪ হাজার টিকিট নেয়নি বিভিন্ন এজেন্সি
শেরপুরে মাথা জোড়া লাগানো যমজ শিশুর জন্ম শেরপুরে মাথা জোড়া লাগানো যমজ শিশুর জন্ম
সিলেটের গোলাপগঞ্জে আবুল খায়েরের হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন সিলেটের গোলাপগঞ্জে আবুল খায়েরের হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন
সালমান ও ঐশ্বরিয়াকে নিয়ে যা বললেন জ্যাকুলিন সালমান ও ঐশ্বরিয়াকে নিয়ে যা বললেন জ্যাকুলিন
সিলেট সিটি নির্বাচন: যে ওয়ার্ডে ভোটকেন্দ্র যেখানে সিলেট সিটি নির্বাচন: যে ওয়ার্ডে ভোটকেন্দ্র যেখানে

আর্কাইভ

PropellerAds

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)